রবিবার, ২০শে জুলাই, ২০২৪ ইং, রাত ৩:২৫

বরিশাল সিটি নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ

ডেস্করিপোর্ট  বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার সকালে নগরীর নথুল্লাবাদে আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির এ প্রতীক বরাদ্দ করেন।

মেয়র পদে দলীয় মনোনয়নপ্রাপ্ত প্রার্থীরা দলীয় প্রতীক এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীরা রিটার্নিং কর্মকর্তার অফিস থেকে বরাদ্দ করা প্রতীক নিয়ে প্রচার ও গণসংযোগ শুরু করেছেন।

মেয়রপ্রার্থীরা হলেন— আওয়ামী লীগের আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ (নৌকা), জাতীয় পার্টির ইকবাল হোসেন তাপস (লাঙ্গল), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ ফয়জুল করীম (হাতপাখা), জাকের পার্টির মিজানুর রহমান বাচ্চু (গোলাপ ফুল), স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুল আহসান (ঘড়ি), আসাদুজ্জামান (হাতি) ও আলী হোসেন (হরিণ)।

কাউন্সিলর পদপ্রার্থীদের বেলায় কোনো কোনো ক্ষেত্রে লটারির মাধ্যমে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। পরে প্রতীক নিয়ে মিছিল সহকারে গণসংযোগ শুরু করেন তারা। সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সাত মেয়র পদপ্রার্থীকে প্রতীক দেওয়া হয়। এ ছাড়া ৩০টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে ১১৬ জনের মধ্যে ১১৫ জনকে প্রতীক বরাদ্দ করা হয়েছে।

একজন প্রার্থী হওয়ায় ৭ নম্বর ওয়ার্ডে কোনো প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। এ ছাড়া সংরক্ষিত কাউন্সিলরের ১০ পদে ৪২ নারী প্রার্থীকে প্রতীক দেওয়া হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রিটার্নিং কর্মকর্তা প্রতীক বরাদ্দ কার্যক্রম শুরু করার আগে প্রার্থীদের দিকনির্দেশনা দেন।

এ সময় তিনি সবাইকে নির্বাচনি আচরণবিধি কঠোরভাবে মেনে চলার নির্দেশনা দেন। প্রতীক বরাদ্দের শুরুতেই সাত মেয়রপ্রার্থীর হাতে দলীয় প্রতীক ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের হাতে নির্ধারিত প্রতীক তুলে দেন।

উল্লেখ্য, বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ১৬ মে এর মধ্যে মনোনয়নপত্র জমা দেন প্রার্থীরা। আগামী ১২ জুন বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ১২৬ কেন্দ্রের ৮৯৪ কক্ষে দুই লাখ ৭৬ হাজার ২৯৮ ভোটার ভোট দেবেন।