বুধবার, ২২শে জুন, ২০২১ ইং, রাত ৪:৩২

সাংসদ পঙ্কজ নাথের গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় মামলা

ডেস্ক রিপোর্ট  বরিশাল জেলার হিজলা উপজেলার খুন্না বন্দর এলাকায় বরিশাল-৪ (মেহেন্দীগঞ্জ-হিজলা) আসনের সংসদ সদস্য পঙ্কজ নাথের গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ অভিযান চালিয়ে এজাহারভূক্ত আসামি চলমান ইউপি নির্বাচনে দুইজন ইউপি সদস্য প্রার্থীসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে।

বুধবার দিবাগত রাতে মামলা দায়ের ও গ্রেফতারের সত্যতা স্বীকার করেছেন হিজলা থানার ওসি অসীম কুমার সিকদার। গ্রেফতারকৃতরা হলেন-শ্রীপুর গ্রামের মোশাররফ হোসেন, সৈয়দ মঞ্জুর মোরশেদ, মহিম দেওয়ান, বড়জালিয়া ইউনিয়নের মোঃ অলিউদ্দিন ও হেলাল সিকদার।

মামলার বাদি হিজলা উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম সরদার বলেন, স্থানীয় একটি খেয়াঘাট নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বড়জালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা মার্কার প্রার্থী এনায়েত হোসেন হাওলাদারের সাথে আমার দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছে। ওই বিরোধের জেরধরে মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে নয়টার দিকে উপজেলার খুন্না বন্দর এলাকায় বসে স্থানীয় সংসদ সদস্য পঙ্কজ নাথের গাড়িবহরে হামলা চালায় এনায়েত হোসেনের সমর্থকরা। হামলাকারীরা সাংসদকে বহন করা গাড়ির গ্লাস ভাঙচুর করায় চালক শুক্কুর আহম্মেদ আহত হন। এ ঘটনায় ২৪ জনের নামসহ অজ্ঞাতপরিচয় ৩০-৩৫ জনকে আসামি করে বুধবার রাতে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

তবে নৌকার প্রার্থী এনায়েত হোসেন হাওলাদার বলেন, আমাকে পরাজিত করতেই এ ধরনের ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। তিনি (এনায়েত) অভিযোগ করেন, সংসদ সদস্য পঙ্কজ নাথ চশমা প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহাবুদ্দিন পন্ডিতকে বিজয়ী করতে মঙ্গলবার বিকেলে ভোট চেয়ে বক্তৃতা দিয়েছেন। এতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

সাংসদের বক্তব্যের একটি ভিডিও ইতোমধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের কাছে পাঠানো হয়েছে। এনায়েত হোসেন আরও বলেন, এ মামলা সাজানো। এর সাথে আমাদের কোনো সম্পৃক্ততা না থাকালেও পুলিশ দুইজন ইউপি সদস্য প্রার্থীসহ আওয়ামী লীগের পাঁচজন কর্মীকে গ্রেফতার করেছে।

সূত্রমতে, হিজলা উপজেলার বড়জালিয়া ও গুয়াবাড়িয়া ইউনিয়নে দলীয় কর্মসূচী শেষে মঙ্গলবার বিকেলে ডাকবাংলোতে বিশ্রাম নেন এমপি পঙ্কজ নাথ। পরে রাতে মেহেন্দীগঞ্জে যাওয়ার জন্য সাংসদ গাড়িবহর নিয়ে পুরোনো হিজলা ফেরিঘাটের দিকে রওনা হন। পথিমধ্যে খুন্না বন্দর এলাকায় পৌঁছলে উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে একদল লোক বের হয়ে সাংসদ পঙ্কজ নাথের গাড়িবহরে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে সাংসদের গাড়ির গ্লাস ভেঙে চালক শুক্কুর আহমেদ আহত হন। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।