মঙ্গলবার, ১১ই মে, ২০২১ ইং, সকাল ৭:৪৫
শিরোনাম :
বরিশালে ভাড়া বাসায় বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর মৃত্যু ঘিরে রহস্য ঘনীভূত বকশীগঞ্জে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৬৫০ পরিবারের মাঝে শাড়ি-লুঙ্গী বিতরণ পুকুর খননকালে উঠে এলো মানুষের কঙ্কাল! ফুলবাড়ীতে দরিদ্রদের মাঝে বন্ধুমহল সেচ্ছাসেবী সংগঠনের ঈদ উপহার বিতরণ গঙ্গায় ভেসে উঠছে শতাধিক মৃতদেহ, ভারতে নতুন আতঙ্ক দক্ষিণাঞ্চলের দেড় কোটি মানুষের ২৬ আইসিইউ বেড, ২ হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন! জেরুজালেমে রকেট হামলা আস্থা ভোটে হেরে ক্ষমতা হারালেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী দেবীদ্বারে বৃদ্ধ দম্পতিকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে যখম করল ভাতিজা পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর পক্ষে অসহায়,হতদরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ

আজীবন সম্মাননায় ভূষিত হলেন সোহেল রানা ও সুচন্দা

অনলাইন ডেস্ক  চলচ্চিত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য ২০১৯-এর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-এ যৌথভাবে আজীবন সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন চলচ্চিত্রের জ্যেষ্ঠ অভিনেতা মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা ও কোহিনুর আক্তার সুচন্দা।

আজ রবিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয় ৪৪তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৯ প্রদানের আসর। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অনুষ্ঠানের সভাপতি তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এমপি।

সোহেল রানার পারিবারিক নাম মাসুদ পারভেজ। চলচ্চিত্রে ‘সোহেল রানা’ নামে পরিচিত তিনি। ১৯৭২ সালে মাসুদ পারভেজ নামে চলচ্চিত্র প্রযোজনা করেন। বাংলাদেশের প্রথম পূর্ণাঙ্গ মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র ‘ওরা ১১ জন’ ছবির প্রযোজক হিসেবে চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশ করেন তিনি।

তিনি ‘মাসুদ রানা’র ছবির মাধ্যমে ১৯৭৩ সালে নায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। সোহেল রানা তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।

কোহিনুর আক্তার সুচন্দার জন্ম যশোরে। ষাটের দশকে চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। সত্তরের দশকে মুক্তি পাওয়া ছবি ‘জীবন থেকে নেয়া’ এবং নব্বইয়ের দশকের ‘ঝিনুক মালা’ ছবির জন্য সবচেয়ে বেশি খ্যাতি কুড়িয়েছেন তিনি।

এছাড়া ১৯৯৬ সালে ‘সবুজ কোট কালো চশমা’ এবং ২০০৫ সালে স্বামী জহির রায়হানের ‘হাজার বছর ধরে’ ছবিটি পরিচালনা ও প্রযোজনা করেন সুচন্দা। মুক্তির বছরই সেরা ছবি হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পায় ‘হাজার বছর ধরে’। আর তিনি এই ছবির জন্য সেরা পরিচালক হিসেবে মনোনীত হন।

১৯৭৬ সালের ৪ এপ্রিল প্রথম চলচ্চিত্র পুরস্কার দেয়া হয়। ২০০৯ সালে প্রথম চালু করা হয় আজীবন সম্মাননা পুরস্কার।