রবিবার, ২৪শে অক্টোবর, ২০২১ ইং, সকাল ৮:০২
শিরোনাম :

কুষ্টিয়ায় হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

ডেস্করিপোর্ট  কুষ্টিয়ায় হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) বিকাল সাড়ে ৩টায় কুষ্টিয়ায় হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা হাসপাতাল কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত হয়। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের কুষ্টিয়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহবুব-উল আলম হানিফ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যদের কথা গভীর মনোযোগ সহকারে শোনেন এবং প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করেন। কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে রুগীর চাপ বেশি থাকায় উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতালের সেবার মান বৃদ্ধি করে স্থানীয় ভাবে রুগীদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করার জন্য সিভিল সার্জন কুষ্টিয়াকে নির্দেশনা প্রদান করেন।

কুষ্টিয়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য জননেতা মাহবুব-উল আলম হানিফ আরো বলেন কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের ছাত্র ছাত্রীরা আগামী ১ জানুয়ারী ২০২২ তারিখ থেকে নতুন ক্যাম্পাসে ক্লাস করবে এবং এই জন্য ডিসেম্বর ২০২১ এর মধ্যে সকল বিল্ডিংয়ের কার্যক্রম সম্পন্ন করার জন্য কুষ্টিয়া জেলার নির্বাহী প্রকৌশলী গণপূর্তকে নির্দেশনা প্রদান করেন। তিনি আরো বলেন হাসপাতালের ডাক্তারা সবসময় মহৎ সেবাকর্ম করে থাকে এবং তাদের এই সেবামূলক কাজ আরো আন্তরিক ভাবে অব্যাহত রাখার জন্য সকল ডাক্তারদের নির্দেশনা প্রদান করেন।

এর আগে প্রধান অতিথি কুষ্টিয়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য জননেতা মাহবুব-উল আলম হানিফ কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের কর্তৃপক্ষের নিকট একটি অত্যাধুনিক ICU Ambulance হস্তান্তর করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার কুষ্টিয়া মোঃ খাইরুল আলম বলেন উপস্থিত ডাক্তারদের নিজ থেকে ভালো কাজ করার ব্যাপারে তাগিদ লক্ষ্য করা গেল যা আমাদের দেশের জন্য খুবই আশাব্যঞ্জক। পুলিশ সুপার কুষ্টিয়া আরো বলেন করোনা কালে অন্য যে কোন দেশের তুলনায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক আমাদের ডাক্তাররা লিমিটেড জনবল ও লজিস্টিকস নিয়ে করোনা কালে অনেক ভালো করেছেন।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের কুষ্টিয়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ সেলিম আলতাফ জজ, মোঃ সাইদুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক কুষ্টিয়া, প্রিন্সিপাল কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ, কুষ্টিয়া, সিভিল সার্জন কুষ্টিয়া, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের পিডি, নির্বাহী প্রকৌশলী গণপূর্ত, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ডাক্তারবৃন্দ, হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ এবং ইলেকট্রনিকস ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।