সোমবার, ৬ই জুলাই, ২০২০ ইং, রাত ১১:১৭
শিরোনাম :
মানবপাচারে জড়িত পিয়নের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ৩০ কোটি টাকা আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে ইন্টারনেট দেয়ার উদ্যোগ মাহিলাড়া ইউনিয়ন পরিষদে জীবানুনাশক টানেল স্থাপণ ফুলবাড়ীতে গরীব অসহায় বানভাসিদের মাঝে সেনাবাহিনীর ত্রাণ বিতরণ কুড়িগ্রামে বন্যার পানি কমলেও দুর্ভোগ কমেনি বরিশালে চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবীতে ইমারত নির্মাণ শ্রমীকদের বিক্ষোভ বানিয়াচংয়ে করোনা আক্রান্তের বাড়িতে ফলের ঝুঁড়ি নিয়ে গেলেন উপজেলা চেয়ারম্যান রাস্ট্রীয় পাট কল বন্ধ করার প্রতিবাদে বরিশালে মানবন্ধন কর্মসূচি পালিত ঝালকাঠিতে নতুন করে ৭ জন করোনায় আক্রান্ত

ডাকসুর পদ ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন গোলাম রব্বানী

ডেক্সরিপোর্ট  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)’র সাধারণ সম্পাদকের পদ ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন গোলাম রব্বানী।

ঢাকসু’র গঠনতন্ত্রের প্রতি শ্রদ্ধা দেখিয়ে পদ ছাড়ার সিদ্ধান্ত দিয়েছেন তিনি। সোমবার (২২ জুন) রাতে গোলাম রব্বানী নিজেই এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রাব্বানী বলেন, ডাকসুর বিষয়ে আমার বক্তব্য একদম স্পষ্ট। নির্ধারিত মেয়াদের অতিরিক্ত ১ মিনিটও পদে থাকতে চাই না।

তিনি বলেন, করোনা দুর্যোগকালীন উদ্ভূত পরিস্থিতিতে যেহেতু আমাদের ৩৬৫ দিনের বৈধ মেয়াদের আগেই অর্থাৎ ১৮ মার্চ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম বন্ধ। তাই আমাদের অসমাপ্ত কাজ, বিশেষ করে, মাস্টারপ্ল্যান বাস্তবায়নে সহায়তা এবং ডাকসুর শিক্ষার্থী সহায়তা ফান্ডে আমার ব্যক্তিগত কন্টিনজেন্সি ফান্ডের অর্থসহ ডাকসুর অব্যবহৃত বাজেটের টাকা হস্তান্তরের মাধ্যমে অধিক সংখ্যক শিক্ষার্থীকে মানবিক সহায়তা প্রদান করতে চাই। আর অবশ্যই চাই, ডাকসু নির্বাচনের ধারাবাহিকতা বজায় থাকুক। সেক্ষেত্রে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ামাত্র বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে পরবর্তী নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করতে হবে। ২৮ বছরের অচলায়তন ভেঙে সচল হওয়া ডাকসুকে আর অচল দেখতে চাই না।

তিনি বলেন, করোনা দুর্যোগের জন্য যে সাড়ে তিন মাস আমরা কাজ করতে পারিনি, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সে সময়টুকু আমাদের প্রাপ্য, আর সেই সময়ের মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন পরবর্তী নির্বাচনও আয়োজন করে ফেলতে পারবে। তাহলে ডাকসুর গঠনতন্ত্র (৬ এর গ ধারা) মেনেই আমরা নতুন নেতৃত্বের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, এটুকু শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে আমাদের যৌক্তিক দাবি। সম্মানিত উপাচার্য মহোদয় ডাকসুর কমিটি ভেঙে দিয়েও যদি উক্ত দাবি মেনে নেন, আমার কোনো আপত্তি নেই।