বুধবার, ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ ইং, সকাল ৮:২২
শিরোনাম :
বকশীগঞ্জে উপজেলা প্রশাসনের মাস্ক ব্যবহার কারীদের ফুলেল শুভেচ্ছা ! পটুয়াখালীতে টাকা না দেয়ায় বাবাকে হত্যা, ছেলে গ্রেফতার জনসেবা নিশ্চিত করতে সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে আরও শক্তিশালী করে তুলতে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী রাশিয়ার করোনার টিকা ৯৫ শতাংশ কার্যকর দাবি বকশীগঞ্জে ঢাকা আহছানিয়া মিশনের প্রকল্প অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত স্বর্ণের দাম ভরিতে ২৫০৮ টাকা কমল গোল্ডেন মনিরের মামলা ডিবিতে হস্তান্তর ঢাকায় এল সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সংবলিত নতুন উড়োজাহাজ ‘ধ্রুবতারা’ ফ্রান্সের বিরুদ্ধে আন্দোলন, সিঙ্গাপুরে ১৫ বাংলাদেশিকে বহিষ্কার ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন ফরিদুল হক

যুগান্তকারী রায়: মাদক মামলার দণ্ডিত আসামি থাকবেন পরিবারের সঙ্গে

ডেক্সরিপোর্ট  মাদক মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ডিত আসামিকে নিয়ে এক যুগান্তকারী রায় দিয়েছে হাইকোর্ট। আসামি মতি মাতবরকে জেলে না রেখে পরিবারের সঙ্গে থাকার রায় দেওয়া হয়।

আসামির করা রিভিশনের শুনানি নিয়ে রবিবার বিচারপতি জাফর আহমেদের একক হাইকোর্ট বেঞ্চ রায়টি দেন।

প্রবেশন আইনের অধীনে হাইকোর্ট বিভাগে এটিই প্রথম ও ঐতিহাসিক রায় বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

পরিবারের সঙ্গে থাকতে রায়ে কয়েকটি শর্ত বেধে দেয় আদালত। সেগুলো হলো- ৭৫ বছরের বৃদ্ধ মায়ের যত্ন নিতে হবে, মেয়ে-ছেলেদের লেখাপড়া চালিয়ে নিতে হবে, নির্ধারিত বয়সের আগে মেয়েকে বিয়ে দেওয়া যাবে না। এসব শর্ত না মানলে তাকে ফের কারাগারে যেতে হবে।

এছাড়া রায়ে আসামি মতি মাতবরকে দেড় বছর ধরে প্রবেশন অফিসারের অধীনে থাকার নির্দেশ দেয় আদালত।

২০১৫ সালের ২৩ নভেম্বর ঢাকার কোতোয়ালি থানায় মতি মাতবরের বিরুদ্ধে একটি মাদক আইনে মামলা হয়। মতির কাছ থেকে ৪১১ পিস ইয়াবা উদ্ধারের অভিযোগে এই মামলা হয়।

এরপর ২০১৭ সালের ৮ জানুয়ারি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে হাকিম আদালত তাকে পাঁচ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। ২০ মাস কারাভোগের পর হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন মতি।