রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ইং, রাত ১১:৪৯
শিরোনাম :
জানুয়ারি মাসে মাদক উদ্ধারে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করলো হাইওয়ে পুলিশ কুমিল্লা রিজিওন ভাষা শহিদদের প্রতি অতিরিক্ত ডিআইজি মো: খাইরুল আলম এর শ্রদ্ধা নিবেদন কুমিল্লা রিজিয়নের খাটিহাতা হাইওয়ে থানায় বিশেষ কল্যাণ সভা অনুষ্ঠিত পার্বতীপুরে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত: রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রংপুর স্মার্ট বিচার বিভাগ গড়ে তোলার প্রত্যয় প্রধানমন্ত্রীর রমজানে পণ্যের দাম বাড়ালে কঠোর ব্যবস্থা: সালমান এফ রহমান অবসরের ৬ মাসের মধ্যে এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের অবসর ভাতা প্রদানের নির্দেশ পটুয়াখালীতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দুর্নীতি প্রতিরোধে করণীয় শীর্ষক ওলামা মাশায়েখ সম্মেলন অনুষ্ঠিত চরকাউয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় আনসার সদস্য সহ আহত ৩ বরিশালে ক্ষদ্র মৎস্যজীবী জেলেদের ৭দফা দাবী আদায়ের লক্ষ্যে বিক্ষোভ

মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য কাজ করছি : প্রধানমন্ত্রী

ডেস্করিপোর্ট  আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ কখনো পালায় না, আওয়ামী লীগ জনগনের জন্য কাজ করে। আমাদের দেশের একজনও গৃহহীন থাকবে না। কোনো মানুষ না খেয়ে থাকবে না, সেই লক্ষ্য নিয়েই আওয়ামী লীগ কাজ করছে। রোববার (২৯ জানুয়ারি) রাজশাহীর মাদ্রাসা ময়দানে আওয়ামী লীগের জনসভায় এ কথা বলেন তিনি।

বর্তমান সরকারের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমরা করোনাকালীন সময়ে বিনা পয়সায় করোনা টেস্ট করা ও ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করেছি। আমরা ১ কোটি মানুষের জন্য টিসিবি কার্ড করে দিয়েছি। এদেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য কাজ করছি।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ যে ওয়াদা দেয়, তা রক্ষা করে। বিএনপি জঙ্গিবাদ ও লুটপাটসহ নানা অপকর্মে জড়িত। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের মানুষ শান্তিতে থাকে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘জিয়াউর রহমান বাধা দিয়েছিল আমাকে দেশে আসতে দেবে না। আমি বাধা অতিক্রম করেই দেশে ফিরেছিলাম। আবার ২০০৭ সালে যখন তত্ত্বাবধায়ক সরকার আসে তখনো আমি বিদেশে গিয়েছিলাম, আমার ছেলের বউ অসুস্থ ছিল। আমাকে দেশে ফিরতে দেবে না। আমি জোর করে দেশে ফিরে এসেছিলাম। আমার বিরুদ্ধে মার্ডার কেস দেওয়া হয়েছিল। আমি বলেছি, আমি যাব। এই কেস আমি মোকাবিলা করবো। আমি দেশে ফিরে এসেছি শুধু বাংলার মানুষের কথা চিন্তা করে।’

এর আগে আজ সকাল ১১টার মধ্যেই জনসভাস্থল কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। রাজশাহী পরিণত হয়েছে মিছিলের নগরীতে।

শহরের ৩টি প্রবেশপথ দিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আজ ভোর থেকেই ছোট-বড় মিছিল নিয়ে জনসভাস্থলে আসতে শুরু করেন।

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বাসে-ট্রাকে এবং পায়ে হেঁটে জনসভাস্থলে এসেছেন। এ ছাড়া, ৮টি ট্রেন ভাড়া করে জয়পুরহাট, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, নাটোর, পাবনা ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে নেতাকর্মীদের রাজশাহী আসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।