বুধবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ ইং, ভোর ৫:৫০
শিরোনাম :
করোনায় ২৬নং ওয়ার্ডের চার মৃত ব্যাক্তির স্বরনে মহানগর মুছলিহীন ক‌মি‌টির উদ্যোগে দোয়া অনুষ্ঠিত ভোলায় জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত ১ ‘বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক নতুন মাত্রায়’ ঘণ্টায় ১১৭ কিলোমিটার বেগে আঘাত হানতে পারে ‘শক্তিশালী জাওয়াদ’ শিক্ষার্থীকে চাপা দেওয়া বাসচালকের সহকারী গ্রেফতার মাদ্রাসাছাত্রীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণে শিক্ষকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড গরুকে বিয়ে করে ঘুমের জন্য নরম বালিশ-বিছানার ব্যবস্থাও করেছেন তিনি বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর অনলাইন চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বরিশাল বিভাগে প্রথম মোস্তফা দেশে ২২৭ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু দুই

কুষ্টিয়ায় পুলিশের বিশেষ অভিযানে অস্ত্র সহ ১২ মামলার আসামী আটক

ডেস্করিপোর্ট  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে দেশীয় অস্ত্র সহ ১২ মামলার আসামী ও তার সহযোগীকে আটক করেছে কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ।

আটককৃতরা হলো কুষ্টিয়ার খোকসা থানাধীন ওসমানপুর ক্যানালপাড়া এলাকার বাসিন্দা শামসুদ্দিন মন্ডলের ছেলে মোঃ সামিরুল ইসলাম (৩৪) ও তার সহযোগী একই এলাকার মোঃ আজিল শেখের ছেলে মোঃ রাজীব শেখ (২৮)।

রবিবার (২১ নভেম্বর) দুপুরে কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে লিখিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ সুপার মোঃ খাইরুল আলম।

এ সময় তিনি আরও জানান, ২০ নভেম্বর রাত ৯টা ১০ ঘটিকায় খোকসা থানাধীন ওসমানপুর ইউনিয়নের হিজলাবট খেয়াঘাটের দক্ষিন পার্শ্বের নির্জন এলাকা থেকে এসপি মোঃ খাইরুল আলমের নির্দেশে খোকসা থানার অফিসার ইনচার্জ, পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত, এবং সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্স বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী ও ১২ টি মামলার এজাহারনামীয় মোস্ট ওয়ানটেড আসামী মোঃ সামিরুল ইসলাম (৩৪) ও তার অন্যতম সহযোগী আসামী মোঃ রাজীব শেখ (২৮) কে আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১টি ওয়ান শুটার গান, ১টি তাজা কার্তুজ, ৯৮ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট, ১টি রামদা, ১টি তলোয়ার ও ১টি অনিবন্ধিত হিরো ডিলাক্স মটরসাইকেলসহ উদ্ধার করা হয়। আটকের সময় আসামীরা দৌড়ে পালানোর চেষ্টাকালে ইটের উপর পড়ে এবং পুলিশের গ্রেফতার এড়ানোর জন্য ধস্তাধস্তিতে সামান্য আহত হওয়ায় তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়। আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে তাদের আরও কয়েক জন সহযোগীর কথা তারা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে।

কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ সুপার মোঃ খাইরুল আলম জানান, আটক আসামীদের বিরুদ্ধে অনেক মামলা মোকদ্দমা চলমান থাকায় উক্ত মামলাগুলি পরিচালনার অর্থ সংগ্রহের জন্য ডাকাতি করার উদ্দেশ্যে তারা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রসহ সেখানে সমবেত হয়েছিল মর্মে তারা স্বীকার করেছে। আসামীরা আরো স্বীকার করে যে, তারা মাদক ব্যবসাও করে আসছে। ডাকাতির জন্য সমবেত হওয়া, অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র এবং মাদকদ্রব্য হেফাজতে রাখার অভিযোগে খোকসা থানায় তাদের বিরুদ্ধে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে যার মামলা নং-১০/১৩৩।

কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ সুপার মোঃ খাইরুল আলম আরও জানান, আটক আসামীদেরকে আদালতে প্রেরন করা হলে আদালত তাদের জেল হাজতে প্রেরন করেছেন।