বুধবার, ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ ইং, সকাল ৮:৩২
শিরোনাম :
বকশীগঞ্জে উপজেলা প্রশাসনের মাস্ক ব্যবহার কারীদের ফুলেল শুভেচ্ছা ! পটুয়াখালীতে টাকা না দেয়ায় বাবাকে হত্যা, ছেলে গ্রেফতার জনসেবা নিশ্চিত করতে সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে আরও শক্তিশালী করে তুলতে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী রাশিয়ার করোনার টিকা ৯৫ শতাংশ কার্যকর দাবি বকশীগঞ্জে ঢাকা আহছানিয়া মিশনের প্রকল্প অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত স্বর্ণের দাম ভরিতে ২৫০৮ টাকা কমল গোল্ডেন মনিরের মামলা ডিবিতে হস্তান্তর ঢাকায় এল সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সংবলিত নতুন উড়োজাহাজ ‘ধ্রুবতারা’ ফ্রান্সের বিরুদ্ধে আন্দোলন, সিঙ্গাপুরে ১৫ বাংলাদেশিকে বহিষ্কার ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন ফরিদুল হক

ফিলিস্তিনের পশ্চিমতীরে পম্পেওর বিতর্কিত সফর নিয়ে উত্তেজনা

অনলাইন ডেস্ক  ফিলিস্তিনিদের দীর্ঘদিনের আপত্তি সত্ত্বেও জেরুজালেমকে শুধু ইসরাইলের রাজধানী বলে ‘স্বীকৃতি’ দিয়েছিলেন আমেরিকান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এর তিন বছরের মাথায় বৃহস্পতিবার অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলেরই অধিকৃত পশ্চিমতীরে ইহুদি বসতিতে গিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে ফিলিস্তিনিদের ক্ষোভে নতুন করে ঘি ঢাললেন তার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। খবর আনাদোলু।

এই প্রথম কোনও মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিতর্কিত পশ্চিমতীরে পা রাখলেন। সেখানে গিয়ে মাইক পম্পেও যা বললেন, তাতে আরও উত্তেজনা ছড়িয়েছে ফিলিস্তিনে।

সেখানে গিয়ে পম্পেও বললেন, পশ্চিমতীরে তৈরি হওয়া যে কোনও পণ্য ‘মেড ইন ইজরাইল’ হিসেবেই বিদেশে রফতানি হওয়া উচিত। কারণ এই ভূখণ্ড ইসরায়েলেরই অবিচ্ছেদ্য অংশ।

পম্পেও আরও বলেন, পশ্চিমতীরে ইসরাইলের বসতি সম্প্রসারণকেও আর আন্তর্জাতিক আইনলঙ্ঘন বলে মনে করবে না ওয়াশিংটন।

গত বছর নভেম্বরে ঠিক এমনটাই বলেছিলেন ট্রাম্প। তার পাঠানো পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মুখে ফের সেই সুর শুনে তীব্র প্রতিবাদ শুরু হয়েছে ফিলিস্তিন ও আরব বিশ্বে।

এরপর সিরিয়ার কাছ থেকে দখল করা গোলান মালভূমিতেও আরেকটি অবৈধ ইহুদি বসতিতে সফর করেন পম্পেও। সিরিয়ার কাছ থেকে ১৯৬৭ সালে এই অংশটি জবরদখল করে ইসরাইল। গোলনকেও ইসরাইলের অংশ মনে করেন বলে জানান পম্পেও।