রবিবার, ৯ই আগস্ট, ২০২০ ইং, সন্ধ্যা ৬:০৯

নদীর পানি নেমে গেলে মানুষের মাঝে স্বস্তি ফিরে আসবে: পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক  বরিশাল সদর সংসদ সদস্য ও পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অবসরপ্রাপ্ত) জাহিদ ফারুক শামীম এমপি বলেছেন- নদীভাঙন রোধে আওয়ামী লীগ সরকার আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে। ইতিমধ্যে কার্যকরি একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। কিন্তু প্রাকৃতিক দুর্যোগ হওয়ায় পুরোপুরি ভাঙন রোধ করা যাচ্ছে না। তবুও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

আজ শুক্রবার (৩১ জুলাই) দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত বরিশাল সদর উপজেলার কীর্তনখোলা ও আড়িয়ালখাঁ নদীর বিভিন্ন স্থান স্পিডবোটযোগে ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শন করে।

এসময় বন্যা সংক্রান্ত গণমাধ্যমের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন- দেশের ৬৪ জেলায় ৪৩২টি খাল খননে কার্যক্রম চলছে। কিন্তু নানা কারণে এটি বিলম্বিত হয়েছে। খাল খনন শেষ হলে সারা দেশে ৫শ’ নদী খননের কাজ শুরু হবে। এই কার্যক্রম শেষ হলে বন্যার সময় নদ-নদীতে পানির ধারণ ক্ষমতা আগের চেয়ে বাড়বে। তখন নদ-নদীতে পানি বাড়লে প্লাবনের তীব্রতা বর্তমানের চেয়ে কমে আসবে।

বরিশাল সদর আসনের এই সাংসদ আশা প্রকাাশ করেন, উজানের দেশে আগামী কয়েক দিনে ভারী বৃষ্টি না হলে বাংলাদেশে নদ-নদীর পানি কমবে এবং দেশে খুব শিগগিরই বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে। নদ-নদীর পানি নেমে গেলে মানুষের মাঝে স্বস্তি ফিরে আসবে বলে মন্তব্য করে প্রতিমন্ত্রী।

পরিদর্শনকালে পানি উন্নয়ন বোর্ড দক্ষিণাঞ্চল জোনের প্রধান প্রকৌশলী মো. হারুন-অর রশিদ ও বরিশাল সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান মধুসহ পানি উন্নয়ন বোর্ডে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।